,



সংবাদ শিরোনাম:
«» শপথ নিয়ে কুমিল্লায় ফিরলেন সীমা। «» কুমিল্লার হোমনায় যুবককে কুপিয়ে হত্যা। «» সাতক্ষীরায় ১ম জেলা প্রশাসক কাপ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন «» ভাইস চেয়ারম্যানের জায়গাটি হবে জনগনের উন্মুক্ত প্লাটফর্ম-প্রার্থী আব্দুস সামাদ। «» সরকারের মহতী উদ্যোগে যেন দেশের কোন মানুষ বিনা চিকিৎসায় মারা না যায়-এমপি রবি «» সাতক্ষীরায় মীর মোকছেদ আলী স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করলেন এমপি রবি «» ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চা শিক্ষার্থীদের ভাল মানুষ হিসাবে গড়ে তুলতে সহায়ক ভুমিকা রাখবে – এমপি রবি «» কুমিল্লার টমছম ব্রিজ থেকে লাকসাম পর্যন্ত ফোর লেনের কাজ দ্রূত করার জন্য নির্দেশনা দিলেন ওবায়দুল কাদের এমপি «» মহেশপুরে ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতির ভাইয়ের ইন্তেকাল,জানাযার নামাজে-এমপি চঞ্চল। «» উপজেলা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপ থেকে ইভিএমে ভোট : ইসি সচিব || ৭১নিউজ

নিয়ামতপুরে কৃষকের রাস্তা বন্ধ করে সরকারী জমি দখল॥ প্রশাসন নীরব রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার নাকোইল মৌজায় কৃষকের ফসলী জমিতে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে সরকারী জমি জবরদখল করে স্থাপনা তৈরী করেছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর একাধিকবার অভিযোগ করলেও অজ্ঞাতকারনে কোন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছেনা। এমনকি জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) পর পর চার বার উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি তদন্তপূর্বক জরুরী ভিত্তিতে সমাধান করার নির্দেশ দিলেও ইউএনও কোন পদক্ষেপ নেননি। এমন কি ইউএনওর নির্দেশে স্থানীয় ইউনিয়ন ভুমি অফিস তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করলেও কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। এমতাস’ায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছেন স্থানীয় সচেতন মহল।
তদন্ত প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ওই জমি নাকোইল মৌজায় সরকারের ১নং খাস খতিয়ানভুক্ত, যার হাল দাগ নং ১০৩৬, শ্রেনী ডহর, পরিমান ৪.৪৩ একর। ওই দাগে ইতোপূর্বে হাট বসতো। বর্তমানে তা বিলুপ্ত। ওই ডহর দিয়ে স্থানীয় কৃষকরা মাঠে তাদের ফসলী জমিতে চলাচল করতো। হঠাৎ করে এলাকার প্রভাবশালী পচা, শহীদুল, আ. সাত্তার, হেনা বিবি, আজিজুল, রেজাউল বাবু ডঙ্কা ও মোঃ বিপুল সরকারী খাস জমিসক ওই ডহরের মুখ বন্ধ করে ইট ও টিন দিয়ে বাড়ি নির্মান করেছে। ফলে ওই ডহর দিয়ে কৃষক তাদের হাল-গরু, লাঙ্গল, পাওয়ার টিলার এমন কি ক্ষেতের ফসল ঘরে তুলতে পারছেনা। বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, ইউনয়ন ভুমি অফিস, এসি ল্যান্ড, ইউএনও এবং জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিতভাবে জানানো হয়। কৃষকদের পক্ষে ওই গ্রামের আলহাজ্ব মোসাঃ সামসুন্নাহার অভিযোগটি দাখিল করেন। কিন্তু রহস্যজনক কারনে অদ্যাবধী কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Developed By H.m Farhad H.m Farhad
Skip to toolbar